জড়পদার্থ, ভালো বাসা

[এই কবিতাটি আমার এক বন্ধুর জীবনাবলম্বনে ]

হুমম!! কেন বলছি?
জানিনা!
সবাই ভাবে আমি হয়তো একটা রোবট!
হয়তো আমি একটা জড়পদার্থ, বা অন্য কিছু।
হয়তো আমি মানুষের পর্যায় পড়িনা,

কেন্?
কেন এত ক্ষোব আমার?
সবাই কে এত দিলাম, সবাইকে এত ভাবলাম,
তোমাকেও ভাবছি, তোমাকেও দিয়েছি?

কি দিয়েছি?
কিভাবে বলি? হৃদয় চাচ্ছে,
আমার প্রতিটি রক্তবিন্দু, প্রতিটি জীন, প্রতিটি কোষ চাচ্ছে,
শুধু একবার তোমায় বলতে,

আমার জীবনে যতটুকু ভালবাসা বিধাতা দিয়েছে, সব- সব তোমার জন্য।

কিন্তু, কি?
তুমি বুঝতে পারনা,
তুমি ভুলে যাও অন্যের কথায়,
বিশ্বাস থাকেনা আর আমার উপর,

আশ্চর্য?
একটিবার জিজ্ঞাসাও করতে পারলেনা?
জাস্ট, আমাকে ছুড়ে দিলে?
এটাই কি ছিল বিশ্বাস?

কেন?
মানুষ কি ভুল করতে পারেনা?
বিধাতা কি মানুষ কে নির্ভূল সৃস্টি করেছে?

না,
তবে?
তবে কেন তোমার ভালবাসা আমাকে পিছু টানে।
আমাকে বেছে নিতে হয় নেশার পথ?

ভাল,
আমি নেশা ধরিণি?
কিন্তু যারা ধরেছে,
পারবে তাদের প্রশ্নের জবাব দিতে?

হে নারী,
আমার ভালবাসা তুমি,
জীবন দিয়ে ভালবেসেছিলাম,
তাই বাসব!
তুমি জান বা নাই জান! …

তারিখঃ সোমবার, ০৯/১১/২০০৯ – ১৭:২৫

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *